একাডেমিক পরীক্ষা সংক্রান্ত নিয়মাবলী

সাপ্তাহিক পরীক্ষা

  • কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতি টার্মে প্রতিটি বিষয়ে দুই বা ততোধিক সাপ্তাহিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।
  • সাপ্তাহিক পরীক্ষার পূর্ণমান প্রতিটি বিষয়ে ২৫ নম্বর এবং সময় ১ ঘণ্টা।
  • সাপ্তাহিক পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর টার্ম পরীক্ষার ফলাফলের সাথে যোগ হয়।
  • কোন শিক্ষার্থী সাপ্তাহিক পরীক্ষায় অনুপস্থিত থাকলে পুনঃপরীক্ষা গ্রহণ করা হয় না।
  • প্রতিটি টার্মের শুরুতেই সাপ্তাহিক পরীক্ষার রুটিন প্রদান করা হবে এবং তদানুসারে সাপ্তাহিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।
  • পাশ নম্বর ১৫।
  • সাপ্তাহিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ বাধ্যতামূলক।

টার্ম পরীক্ষা

  • সর্বমোট ৫টি টার্ম পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।
  • টার্ম পরীক্ষার পূর্ণমান প্রতিটি বিষয়ে ৫০ নম্বর এবং সময় ১:৩০ মিনিট।
  • পাশ নম্বর ৩০।
  • টার্ম পরীক্ষায় উপস্থিত থাকা ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য বাধ্যতামূলক।

বার্ষিক পরীক্ষা

সমগ্র সিলেবাসের উপর একটি বোর্ড মানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। বার্ষিক পরীক্ষার প্রতিটি বিষয়ে পাশ নম্বর ৫০%। টার্ম ও বার্ষিক পরীক্ষার আগেই যাবতীয় ফি ও জরিমানা পরিশোধ সাপেক্ষে পরীক্ষার প্রবেশপত্র সংগ্রহ করতে হয়। প্রবেশপত্র ব্যতীত কেউ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারে না। বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফল, ক্লাসে উপস্থিতি, আচার-আচরণ প্রভৃতি বিষয় বিবেচনা করে প্রতি বছর ০১ জন শিক্ষার্থীকে সামগ্রিক বিষয় বিবেচনায় ‘বেস্ট পারফরমেন্স অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান করা হয়। এছাড়াও ১ম, ২য় ও ৩য় স্থান অর্জনকারীকে পুরস্কৃত করা হয়।

অন্যান্য পরীক্ষাসমূহ

  • প্রি-টেস্ট : ২য় পত্রের সব বিষয়ের উপর এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।
  • টেস্ট পরীক্ষা : ১ম পত্রের সব বিষয়ের উপরে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।
  • মডেল টেস্ট : এইচ.এস.সি পরীক্ষার ফর্ম পূরণের পর ১ম ও ২য় পত্রের সকল বিষয়ে কমপক্ষে ২টি করে মডেল টেস্ট অনুষ্ঠিত হয়।
  • পরীক্ষার ফলাফল : প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব ওয়েব সাইটে নিয়মিতভাবে সব পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়। যে কোনো শিক্ষার্থী ও অভিভাবক তা দেখতে ও সংগ্রহ করতে পারে।